Channel786 is a Community News Network

মার্কিন অনুমোদনে ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে ইরানি প্রতিষ্ঠান

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২০:৩৯, ১৩ জানুয়ারি ২০২২

মার্কিন অনুমোদনে ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে ইরানি প্রতিষ্ঠান

২০১৫ সালের এক মামলায় ইরানের এক বিনিয়োগকারীকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার পথ সুগম করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তেহরানের বিরুদ্ধে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গের অজুহাতে ওই ক্ষতিপূরণ আটকে রাখে দক্ষিণ কোরিয়া। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র বিশেষ অনুমতি দিয়ে ওই অর্থ পরিশোধের পথ সুগম করেছে।

ইরানের দায়ানি গ্রুপ ২০১৫ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে চুক্তি ভঙ্গের অভিযোগে মামলা দায়ের করে। ইরানের ভোগ্যপণ্যের ইলেক্ট্রনিক্স গ্রুপটি অভিযোগ করে সিউল তাদের পাওনা পাঁচ কোটি ডলার ফেরত দিচ্ছে না। এই অর্থ দক্ষিণ কোরিয়ার দেউলিয়া হয়ে যাওয়া দায়েউ ইলেক্ট্রনিক্সের বেশিরভাগ শেয়ার কিনে নিতে পরিশোধ করে কোম্পানিটি।

 

২০১৮ সালে সিউলকে মোট ছয় কোটি ১৪ লাখ ডলার দায়ানি পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দেয় বিশ্ব ব্যাংকের বিনিয়োগ বিরোধ নিরসন কেন্দ্র। তবে ইরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে ওই ক্ষতিপূরণের অর্থ আটকে যায়।

 

বুধবার দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, মার্কিন রাজস্ব দফতরের বৈদেশিক সম্পদ নিয়ন্ত্রণ বিভাগ গত ৬ জানুয়ারি একটি ‘নির্দিষ্ট লাইসেন্স’ ইস্যু করে মার্কিন আর্থিক ব্যবস্থার মাধ্যমে ওই অর্থ পরিশোধের পথ সুগম করেছে।

বিনিয়োগ চুক্তির বিরোধে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রথম পরাজয় দায়ানি মামলা। এই মামলায় সিউলের আপিল ২০১৯ সালে খারিজ হয়ে যায়।

ইরান তখন থেকেই অভিযোগ করে আসছে এই ছয় কোটি ডলার জিম্মি করে রেখেছে দক্ষিণ কোরিয়া।

সংবাদটি শেয়ার করুনঃ